Uncategorized

কোনও নন মাহরাম যদি ইনবক্সে আর্থিক সাহায্য চায়…


▬▬▬▬◐◯◑▬▬▬▬▬
প্রশ্ন: কোনও নন মাহরাম যদি সাহায্যের জন্য ইনবক্সে মেসেজ দেয় বা বাস্তবে কথা বলতে চায় তাহলে কি করণীয়? কথা বলা উচিত হবে?
উত্তর:
ভুক্তভোগীরা বলেন, প্রথমে আপনার ফেসবুক ইনবক্সে এসে সাহায্য চাইবে। আপনি সাহায্য করতে রাজি হলে ছোট একটা কমন গল্প বলে আপনার কাছ থেকে টাকা ধার চাইবে। এই পরিমাণও খুব বেশি না ২/৩ হাজার থেকে ১০/১২ হাজারের ভেতরই এরা সীমাবদ্ধ থাকে। সাধারণত বিকাশ করতে বলে টাকা। যারা টাকা দিয়েছে বা দেয় তারা যে টাকা আর ফেরত পায় না।
খোঁজ নিয়ে দেখা গেছে, বিভিন্ন ফেক আইডি খুলে অল্প কিছু দিনের বন্ধুত্ব করে। তারপর টাকাটা চায়। টাকা দিলে আইডি ব্লক করে যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করে ফেলে। অন্যদিকে মূলত: হ্যাকার গ্রুপ আইডি হ্যাক করতে পারলে ওরাই এই কাজ করে থাকে বেশির ভাগ।
দেখা গেছে, এমন সব মানুষের আইডি থেকে আপনাকে এই ধরণের মেসেজ পাঠানো হবে। আপনি ভ্রু কুচকে ভাবতে বসবেন, ঘটনা কী! সেইসব মেসেজ যাচাই না করে লজ্জায় অনেকে টাকা পাঠিয়েও দিতে পারেন। আর যারাই টাকা পাঠান, তারাই প্রতারণার শিকার হন। [be.bangla.report]
যাহোক, কোন নন মাহরাম ব্যক্তি যদি ইনবক্সে নিজের অভাব-অনটন, অসহায় মানুষের উপকার, মসজিদ, মাদরাসা, টিউবওয়েল ইত্যাদির জন্য আর্থিক সাহায্য চায় বা এ বিষয়ে কথা বলতে চায় তাহলে কেবল প্রয়োজনীয় কথা বলা যাবে। তারপর যদি সত্যি সে অভাবী হয় বা তার কথা বিশ্বাসযোগ্য মনে হয় তাহলে সাহায্য করলে নেকি পাওয়া যাবে ইনশাআল্লাহ। তবে তার সাথে প্রয়োজনের অতিরিক্ত কোনও কথা বলা জায়েজ নাই। কেননা তা উভয়কে ফিতনার দিকে টেনে নিতে পারে।
❑ সতর্কতা ও পরামর্শ:
যেমনটি ফেসবুক ব্যবহারকারীদের বর্তমানে ফেসবুকে নারী ফিতনার সংখ্যা সীমাহীন। মানুষ নানাভাবে এতে ফিতনায় পতিত হচ্ছে। তাছাড়া অনলাইন কেন্দ্রিক দান-সদকার নামেও চলছে প্রচুর প্রতারণা। অনেক সময় নারীর মাধ্যমে এসব ফাঁদ পেতে সহজ-সরল যুবকদেরকে ব্ল্যাক মেইল করে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে। সুতরাং এ বিষয়ে হুট করেই সাড়া না দিয়ে সতর্কতা সহকারে তদন্ত সাপেক্ষে সাহায্য করা উচিৎ। আল্লাহু আলাম।
▬▬▬▬◐◯◑▬▬▬▬▬
উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *