Uncategorized

পিতা সুদি কারবার বা অন্যান্য হারাম কর্ম যুক্ত থাকলে তার মেয়েকে বিয়ে করা কি উচিৎ কি?

পিতা সুদি কারবার বা অন্যান্য হারাম কর্ম যুক্ত থাকলে তার মেয়েকে বিয়ে করা কি উচিৎ কি?
▬▬▬❖✪❖▬▬▬
প্রশ্ন: এক ব্যক্তি পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ আদায় করে কিন্তু তার সুদের ব্যবসা আছে। তার মেয়েকে বিয়ে করা উচিত হবে কি?
উত্তর:
নি:সন্দেহে সুদি কারবার করা হারাম ও ইসলামের ভয়াবহ গুনাহ সমূহের অন্যতম। কোন মুসলিমের জন্য সুদের সাথে সম্পর্ক রাখা জায়েজ নাই।
যাহোক, আপনি যে মেয়েটিকে বিয়ে করতে চান তাকে যদি আপনার ভাল লাগে বা পছন্দ হয় এবং তার মধ্যে দীনদারি, পরহেজগারিতা ইত্যাদি বিদ্যমান থাকে তাহলে তাকে বিয়ে করতে কোন আপত্তি নেই।
◍ হাদিসে বর্ণিত হয়েছে,
تُنْكَحُ الْمَرْأَةُ لِأَرْبَعٍ : لِمَالِهَا ، وَلِحَسَبِهَا ، وَلِجَمَالِهَا ، وَلِدِينِهَا ، فَاظْفَرْ بِذَاتِ الدِّينِ تَرِبَتْ يَدَاكَ
“মহিলাকে চারটি দিক দেখে বিয়ে করা হয়। যথা: বংশমর্যাদা, সৌন্দর্য, অর্থ-সম্পদ এবং দ্বীনদারী। অত:এব তুমি দ্বীনদারী নারীকে বিয়ে করে সফল হয়ে যাও…।” (বুখারি ও মুসলিম)
আর পিতার পাপাচার, হারাম উপার্জন ও অন্যায় কর্মেরে জন্য মেয়ে দায়ী নয়। আল্লাহ তাআলা বলেন,
وَلَا تَزِرُ وَازِرَةٌ وِزْرَ أُخْرَىٰ
“কেউ অপরের বোঝা বহন করবে না।”(সূরা ইসরা: ১৫)
তিনি আরও বলেন,
كُلُّ نَفْسٍ بِمَا كَسَبَتْ رَهِينَةٌ
“প্রত্যেক ব্যক্তি তার কৃতকর্মের জন্য দায়ী।” (সূরা আল মুদ্দাসসির: ৩৮)
বিদায় হজ্জের ঐতিহাসিক অভিভাষণে নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেন,
أَلاَ لاَ يَجْنِي جَانٍ إِلاَّ عَلَى نَفْسِهِ لاَ يَجْنِي وَالِدٌ عَلَى وَلَدِهِ وَلاَ مَوْلُودٌ عَلَى وَالِدِهِ
‘‘জেনে রাখ, যে অপরাধ করবে তাকে তার দায় বহন করতে হবে। পিতার অপরাধের জন্য পুত্রকে এবং পুত্রের অপরাধের জন্য পিতাকে দায়ী করা যাবে না।” [ইবনে মাজাহ, শাইখ আলবানি হাদিসটিকে সহিহ বলেছেন]
সুতরাং কনোও পিতা যদি সুদি কারবার বা হারাম উপার্জন, মদপান বা অন্যান্য পাপাচার করে কিন্তু তার মেয়ে যদি ভালো, সৎ ও দীনদার হয় তাহলে তাকে বিয়ে করতে কনো বাধা নেই ইনশাআল্লাহ।
তবে আপনি যৌতুক নিবেন না বা বিয়ের পরও শ্বশুরের দেয়া দান ব্যবহার থেকে যথাসাধ্য বিরত থাকবেন। পাশাপাশি আপনার শ্বশুরকে সুদি কারবার পরিত্যাগ করতে নসিহত করার চেষ্টা করবেন।
আল্লাহ তাওফিক দান করুন।
▬▬▬❖✪❖▬▬▬
উত্তর প্রদান:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *