Uncategorized

“সাকীনা” কি?

“সাকীনা” কি?

প্রশ্ন: “সাকীনা” কি? এটি যারা কুর’আন তিলাওয়াত করে তাদের উপর নাকি নাজিল হয়। এক হাদিসে বলা হয়েছে, এক সাহাবি কুর’আন তিলাওয়াত করছিলেন। এই সময় ‘সকীনা’ নাজিল হল। এটি কি ফেরেশতা ছিল? এ বিষয়ে যদি জানাতেন তাহলে উপকৃত হতাম।।

উত্তর :
সাকীনা শব্দের অর্থ: শান্তি, প্রশান্তি, স্বস্তি ও সান্ত্বনা।
কুরআনে ও হাদিসে এই ‘সাকীনা’ শব্দটি বহু স্থানে ব্যবহৃত হয়েছে। যেমন:

  • প্রখ্যাত সাহাবী বারা ইবনে আযেব রা. হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, ‘‘একদা একটি লোক সূরা কাহাফ পাঠ করছিল। তার পাশেই দু টো রশি দিয়ে একটি ঘোড়া বাঁধা ছিল।
    ইতোমধ্যে লোকটিকে একটি মেঘে ঢেকে নিলো। মেঘটি লোকটির নিকটবর্তী হতে থাকলে ঘোড়াটি তা দেখে চমকাতে আরম্ভ করল। অতঃপর যখন সকাল হল তখন লোকটি রাসূলুল্লাহ সল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম–এর দরবারে হাজির হয়ে উক্ত ঘটনা বর্ণনা করল। তা (শুনে) তিনি বললেন, ‘‘ওটি সাকীনা বা প্রশান্তি ছিল, যা তোমার কুরআন পড়ার দরুন অবতীর্ণ হয়েছে।’’ (সহীহ আল বুখারী ও সহীহ মুসলিম)
  • এ ছাড়াও আল্লাহ কুরআনে বলেছেন,
    هُوَ الَّذِي أَنزَلَ السَّكِينَةَ فِي قُلُوبِ الْمُؤْمِنِينَ لِيَزْدَادُوا إِيمَانًا مَّعَ إِيمَانِهِمْ
    “তিনি মুমিনদের অন্তরে সাকীনা (প্রশান্তি) অবতীর্ণ করেন, যাতে তাদের ঈমানের সাথে আরও ঈমান বেড়ে যায়।” (সূরা আল ফাতহ: ৪)

● ইবনে আব্বাস রা. বলেন, সকীনা অর্থ: الرحمة দয়া এবং الطمأنينة শান্তি, প্রশান্তি, নিশ্চিন্ততা, আস্থা ইত্যাদি।
● কাতাদা রহ. বলেন, الوقار তথা গাম্ভীর্য, সম্মান, শ্রদ্ধা, সহনশীলতা ইত্যাদি।
(তাফসির ইবনে কাসির)

অর্থাৎ এটি এক প্রকার মানসিক প্রশান্তি, স্বস্তি, সান্ত্বনা, স্থিরতা ও সহনশীলতা যা আল্লাহ তায়ালা বান্দার অন্তের ঢেলে দেন। এর ফলে যত ভয়-ভীতি ও বিপদাপদ আসুক না কেন সে হাহুতাশ করে না, অস্থির হয় না, ভেঙ্গে পড়ে না বরং মানসিকভাবে শক্তি ও সাহস খুঁজে পায়। যার কারণে মহান আল্লাহর তার ঈমান আরও বৃদ্ধির পায়। সেই সাথে তাঁর প্রতি আস্থা ও নির্ভরতা হয় আরও সুদৃঢ়।
আল্লাহু আলাম।

উত্তর প্রদানে:
আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আব্দুল জলীল
Abdullahil Hadi
দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ সেন্টার, সৌদি আরব

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *