বাংলাদেশে উশর বা ফসলের যাকাত গুরুত্ব ও প্রয়োগ

৳ 125

ড. খন্দকার আব্দুল্লাহ জাহাঈীর (রহ)

Description

ইসলাম একটি সার্বজনীন ধর্ম।
মানবজীবনের সকল সমস্যার সার্থক সমাধান রয়েছে ইসলামে।ব্যক্তিগত থেকে শুরু করে রাজনৈতিক সকল সমাধান এতে রয়েছে।এমনি বিশ্ব অর্থনৈতিক অবস্থারও সমাধান বাদ যায়নি।যাকাত ব্যবস্থার প্রবর্তন করে মানবজাতির
অর্থনৈতিক সমস্যার সার্থক সমাধানের পথ সুগম করে দিয়েছে শাশ্বত সুন্দর ও সত্য-ন্যায়ের ধর্ম ইসলাম
যাকাত ব্যবস্থার প্রবর্তন করে মানবজাতির অর্থনৈতিক সমস্যার সার্থক সমাধানের পথ সুগম করে দিয়েছে শাশ্বত সুন্দর ও সত্য-ন্যায়ের ধর্ম ইসলাম। মূলতঃ যাকাত ব্যবস্থার পূর্ণ বাস্তবায়ন হলে কোন সমাজে দারিদ্র্য থাকতে পারে না। অন্যান্য ফরজের মতো
সম্পদের যাকাত আদায় করাও ফরজ।আবার যারা যাকাত দেয় তারা যাকাত বলতে সোনা,রুপা থাকলেই যাকাত হবে এমটা বুঝি।আবাদি ফসলেরও যে যাকাত আছে তা জানিও না।যেটাকে “উশর” বলা হয়।অর্থাৎ আবাদকৃত ফসলের ১/১০ বা ১/২০ অংশের যাকাতকে উশর বলে।ককুরআনে এ সম্পর্কেও বলা আছে-
আর যখন বৃক্ষ ফলবান হয় তখন তোমরা ভক্ষণ কর এবং তা কর্তনের সময় সেটার পাওনা বা অধিকার পরিশোধ কর।(সুরা আনআম-১৪১)।
সুতরাং ফসলের এই উশর আদায় করাও ফরজ। এ বিষয়টি পবিত্র কোরআন দ্বারা সুস্পষ্ট প্রমাণিত।উশর এর নিসাব কী? বা কী পরিমাণ ফসল হলে উশর আদায় করতে হবে?কোন কোন ফসলের উশর হবে ও হবে না?কখন ১/১০ বা ১/২০ ভাগ হবে?জমি বর্গাচাষ করলে নিসাব কি হবে? এমন কতক বিষয় আমাদের অবশ্যই জানা থাকা দরকার।এমন সব বিষয় নিয়ে সার্বিক আলোচনা করা হয়েছে”উশর বা ফসলের যাকাত”নামক বইয়ে।যার লেখক হলেন ড.খো.আ.জাহাঙ্গীর(রাহিমাহুল্লাহ)।তার লেখা অনেক বই সবাই সংগ্রহ করে যাচ্ছেন।এই বইটির নাম উশর বা ফসলের যাকাত দেয়া হলেও তাতে উশরের পাশাপাশি সম্পদের যাকাত সম্পর্কেও সম্পুর্ন আলোচনা করেছেন এবং তা সুস্পষ্ট,সাবলিল ও কুরআন হাদিসের দলীল সহকারে পেশ করেছেন।আল্লাহ লেখকে জান্নাতুল ফেরদৌস দান করুন।

Reviews (0)

Reviews

There are no reviews yet.

Be the first to review “বাংলাদেশে উশর বা ফসলের যাকাত গুরুত্ব ও প্রয়োগ”

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Shopping cart
Facebook Twitter Instagram YouTube WhatsApp WhatsApp

Sign in

No account yet?